বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:২৮ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
মালয়েশিয়ায় ৬টি পিস্তল সহ ইসরায়েলি নাগরিক আটক: দেশজুড়ে সতর্কতা জারি বাংলাদেশের জ্বালানি খাতে সৌদি আরবের ১৪০ কোটি ডলার বিনিয়োগ ভুটানের রাজাকে সঙ্গে নিয়ে কেক কাটলেন রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী ছিনতাইকালে ধরা পড়া দুই পুলিশ সদস্য রিমান্ডে! ২৮ মার্চ জেলা ইসলামী আন্দোলন ইফতার মাহফিল হোটেল অস্টারইকো তে। মিয়ানমারে সরকার গঠন করতে যাচ্ছে বিদ্রোহীরা প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ জানিয়েছে মোস্তাফিজ ও বাবুল মিয়ানমারের গ্যং স্টারের বাংলাদেশি সহযোগি হোয়াইক্যং এর দালালরা অধরায়! সাড়ে ৪ লাখের বেশি রোহিঙ্গা টেকনাফে প্রবেশের অপেক্ষায়! হ্নীলা উম্মে সালমা মহিলা মাদরাসায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত
আরব আমিরাতে ১০ হাজার বাংলাদেশির কর্মসংস্থানের সুযোগ

আরব আমিরাতে ১০ হাজার বাংলাদেশির কর্মসংস্থানের সুযোগ

বাংলাদেশ সরকার তৎপর হলে সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিখ্যাত ড্রাগন মার্ট শপিংমলে আরও ১০ হাজার প্রবাসী বাংলাদেশির কর্মসংস্থানের সুযোগ হতে পারে বলে মনে করছেন প্রবাসী ব্যবসায়ীরা। সাম্প্রতিক সময়ে ভিসা পরিবর্তন প্রক্রিয়া শুরু হওয়ায় এই সুযোগটি তৈরি হয়েছে। তবে, এক্ষেত্রে অগ্রণী ভূমিকা রাখতে পারে বাংলাদেশ দূতাবাস।

সংযুক্ত আরব আমিরাতে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ও বিশাল আয়তনের শপিংমল চায়না শপিং মল বা ড্রাগন মার্ট শপিং মলের খ্যাতি রয়েছে এশিয়াজুড়ে। ১৫ বছর আগে এ শপিং মল চালুর পর থেকে বাংলাদেশিদের আধিপত্য ছিলো চোখে পড়ার মতো। তবে, ২০১২ সালে বাংলাদেশিদের জন্য আমিরাতের ভিসা বন্ধ হয়ে যাওয়ায় সে আধিপত্যে ভাটা পড়ে। জায়গা করে নেন এশিয়ার অন্য দেশের নাগরিকরা।
এক বাংলাদেশি ব্যবসায়ী বলেন, সরকার যেন একটু নজর দেয়। সরকার যদি দক্ষ শ্রমিক প্রেরণ করে। এর উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পাবে আরও।
আরেক বাংলাদেশি ব্যবসায়ী বলেন, বাঙালি শ্রমিক যদি আমরা এখানে নিয়োগ দিতে পারি। ভিসাগুলো যদি আমরা এখানে ট্রান্সফার করতে পারি তাহলে ইনশাআল্লাহ আমরা দশ হাজার শ্রমিক এখানে নিয়োগ দিতে পারব।
বর্তমানে দুবাইয়ের বিখ্যাত এ শপিংমলের প্রায় ছয় হাজার বাংলাদেশি কর্মরত আছেন। এক সময় যারা এই শপিংমলে কর্মচারী ছিলেন তাদের অনেকেই এখন ব্যবসায়ী।

এক বাংলাদেশি ব্যবসায়ী বলেন, প্রথমে এখানে চাকরি শুরু হয় একজন দোকান কর্মচারী হিসেবে। পরে আমি আস্তে আস্তে যখন ব্যবসা সম্পর্কে, মার্কেট সম্পর্কে বুঝতে শুরু করলাম তারপর থেকে আমি নিজেই পরিকল্পনা করে ব্যবসা শুরু করলাম।

ড্রাগণ মার্ট শপিংমলের দুইটি ইউনিটে প্রবাসী বাংলাদেশিদের বিনিয়োগ রয়েছে পাঁচ হাজার কোটি টাকার উপরে। কিন্তু এই বিনিয়োগ দেখভাল করার জন্য নিজ দেশের বিশ্বস্ত জনবল প্রয়োজন বলে মনে করেন ব্যবসায়ীরা। তাই ভিসা জটিলতা কাটিয়ে উঠার জন্য বাংলাদেশ মিশনের তৎপরতা প্রত্যাশা করছেন তারা।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design By Rana