1. banglahost.net@gmail.com : rahad :
  2. teknafnews24@gmail.com : tahernaeem :
ওসির সঙ্গে আসামিদের আনন্দ উদযাপন! তদন্ত কমিটি গঠন - Teknaf News24
রবিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২১, ০৬:৫৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
রোহিঙ্গা দুর্বৃত্তের গুলিতে ৬ রোহিঙ্গা নিহত মণ্ডপে কুরআন রাখার কথা ‘স্বীকার করেছে’ ইকবাল দৈনিক কক্সবাজার ৭১ কার্যালয়ে খতমে কুরআন ও দোয়া মাহফিল অনুষ্টিত রোহিঙ্গা ও আটকে পড়া পাকিস্তানিরা বাংলাদেশের বোঝা: প্রধানমন্ত্রী প্রাথমিক-ইবতেদায়ি সমাপনী পরীক্ষা হচ্ছে না! বাংলাদেশ কোনো ধর্ম ব্যবসায়ী-মৌলবাদীর আস্তানা হতে পারে না- তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী উখিয়ার ৫ ইউনিয়নে ৩৯২ প্রার্থীর মনোনয়ন জমা টেকনাফে প্রধানমন্ত্রীর অনুদানের চেক হস্তান্তর হোয়াইক্যং বাজার ব্যবসায়ী কল্যাণ সমবায় সমিতির নির্বাচনে হানিফ সভাপতি,মুর্শেদ সম্পাদক নির্বাচিত আইসের চালান ধরা পড়লে টাকা দিতে হয় না মিয়ানমারে

ওসির সঙ্গে আসামিদের আনন্দ উদযাপন! তদন্ত কমিটি গঠন

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ১০ মার্চ, ২০২১
  • ৩৯২ বার পঠিত

পটুয়াখালীর বাউফল থানার ওসি মোস্তাফিজুর রহমান দ্রুত বিচার আইনসহ একাধিক মামলার আসামিদের সঙ্গে সেলফি ও ছবি তোলার ঘটনায় এক সদস্যের একটি বিভাগীয় তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। পটুয়াখালীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সদর সার্কেল মুকিত হাসান খানকে প্রধান করে গঠিত এক সদস্যের তদন্ত কমিটিকে আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে প্রতিবেদন দিতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। পটুয়াখালীর পুলিশ সুপার মোহাম্মাদ শহীদুল্লাহ মঙ্গলবার এ কমিটি গঠন করেন।

মঙ্গলবার দুপুরে তার কার্যালয়ে সাংবাদিকদের বিষয়টি নিশ্চিত করে তিনি জানান, ওসির ওই ঘটনায় বিভিন্ন মিডিয়ায় সচিত্র সংবাদ প্রকাশিত হওয়ার প্রেক্ষিতে এ তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। ২৪ ঘণ্টার মধ্যে তদন্তকারী কর্মকর্তাকে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তদন্ত প্রতিবেদন সাপেক্ষে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ ব্যাপারে তদন্তকারী কর্মকর্তা পটুয়াখালীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সদর সার্কেল মুকিত হাসান খান জানান, তিনি ইতোমধ্যে তদন্ত কার্যক্রম শুরু করেছেন এবং র্নিধারিত সময়ের মধ্যে প্রতিবেদন দেওয়ার চেষ্টা করছেন।

উল্লেখ্য, গত রবিবার বিকালে বাউফল থানা চত্বরে বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণে জাতিসংঘের চূড়ান্ত সুপারিশপ্রাপ্তিতে সারাদেশের ন্যায় বাউফল থানা পুলিশের ‘আনন্দ উদযাপন’ নামে একটি অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। রবিবারের আনন্দ উদযাপনের ওই অনুষ্ঠানে দ্রুত বিচার আইনের ওই মামলার তালিকার এক নম্বর আসামি ফয়েজ বিশ্বাস (২৫), দুই নম্বর আসামি মামুন হাওলাদার (৩২), তিন নম্বর আসামি কবির মৃধা (৩০), নয় নম্বর আসামি হাসান দফাদার (৩০) ও ১০ নম্বর আসামি আলাউদ্দিন খানসহ (৩০) তাদের সমর্থিত অনেকেই উপস্থিত ছিলেন।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, আসামি কবির দুইবার বিপুল পরিমাণ ইয়াবাবড়িসহ পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হন। দীর্ঘদিন কারাগারে ছিলেন। মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে একাধিক মামলা রয়েছে। হাসান ছিনতাই করতে গিয়ে পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হয়ে দীর্ঘদিন কারাগারে ছিলেন।

ফেসবুকে পোস্ট করা ছবিতে দেখা যায়, ওসি মোস্তাফিজ মাঝখানে দাঁড়িয়ে। তার বাঁ পাশে ফয়েজ ও মামুন এবং ডান পাশে হাসান, কবির ও আলাউদ্দিনসহ আরও কয়েকজন ছবি তোলার জন্য দাঁড়িয়ে আছেন।

ফয়েজ বিশ্বাসের আইডি থেকে পোস্ট করা সেলফিতে দেখা যায়, ওসি মোস্তাফিজ ও ফয়েজ হাস্যোজ্জল। তিনি স্ট্যাটাসে লিখেছেন একজন সৎ পুলিশ অফিসার, স্যার আপনার হাতেই নিরাপদ আমাদের বাউফল। স্যারের জন্য অনেক অনেক শুভ কামনা।

প্রত্যক্ষদর্শী কয়েকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে ও আসামিদের ফেসবুকে আইডিতে দেখা যায় ওই অনুষ্ঠানের শুরুতে থানা চত্বরের ফুল বাগানের পাশে ও অনুষ্ঠান চলাকালে তারা ওসি মোস্তাফিজুরের সঙ্গে ছবি ও সেলফি তোলেন। ওই ছবি ও সেলফি আসামিরা তাদের ফেসবুক আইডি থেকে পোস্ট করেন।

স্থানীয় বাসিন্দা ও আদালত সূত্রে জানা গেছে, ১৩ ফেব্রুয়ারি (শনিবার) রাতে ফয়েজ বিশ্বাসের (২৫) নেতৃত্বে ১৮-১৯ জনের একটি দল বটকাজল গ্রামের ব্যবসায়ী মিজান মৃধার বাড়িতে হামলা, ভাঙচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটায়। ওই ঘটনায় পটুয়াখালীর আইন-শৃঙ্খলা বিঘ্নকারী অপরাধ (দ্রুত বিচার) আদালতে ১৮ ফেব্রুয়ারি মিজান বাদী হয়ে নাম উল্লেখ করে আরও পাঁচ-সাতজন অজ্ঞাত ব্যক্তির নামে নালিশি অভিযোগ করেন।

আদালত অভিযোগটি এজাহার হিসেবে গণ্য করে বাউফল থানার ওসিকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য নির্দেশ দেন। বাউফল থানার ওসি ২৫ ফেব্রুয়ারি মামলা রুজু করেন।

এ বিষয়ে মামলার বাদী মিজান মৃধা বলেন, ‘দীর্ঘদিন অতিবাহিত হলেও আসামিদের পুলিশ গ্রেপ্তার করছে না। এমনিতেই আসামিদের হুমকির কারণে তিনি ও তার পরিবারের সবাই ভীতসন্ত্রস্ত। ওসির সঙ্গে আসামিদের সখ্যতার ছবি দেখে আমি হতভম্ব ও মামলার সঠিক তদন্ত নিয়ে শঙ্কিত।’

এ বিষয়ে ওসি মোস্তাফিজুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, ‘আনন্দ উদযাপন অনুষ্ঠানে বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ উপস্থিত হয়েছিলেন। অনেকেই আমার সঙ্গে ছবি ও সেলফি তুলেছেন। তাদের মধ্যে কে আসামি, আর কে আসামি না, তা আমি চিনতে পারিনি।’

প্রসঙ্গত: ঢাকাটাইমস অনলাইনে ‘ওসির সঙ্গে আসামিদের আনন্দ উদযাপন ছবি ভাইরাল’ একটি প্রতিবেদন প্রকাশ হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Bangla Webs