বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১১:১৭ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
মালয়েশিয়ায় ৬টি পিস্তল সহ ইসরায়েলি নাগরিক আটক: দেশজুড়ে সতর্কতা জারি বাংলাদেশের জ্বালানি খাতে সৌদি আরবের ১৪০ কোটি ডলার বিনিয়োগ ভুটানের রাজাকে সঙ্গে নিয়ে কেক কাটলেন রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী ছিনতাইকালে ধরা পড়া দুই পুলিশ সদস্য রিমান্ডে! ২৮ মার্চ জেলা ইসলামী আন্দোলন ইফতার মাহফিল হোটেল অস্টারইকো তে। মিয়ানমারে সরকার গঠন করতে যাচ্ছে বিদ্রোহীরা প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ জানিয়েছে মোস্তাফিজ ও বাবুল মিয়ানমারের গ্যং স্টারের বাংলাদেশি সহযোগি হোয়াইক্যং এর দালালরা অধরায়! সাড়ে ৪ লাখের বেশি রোহিঙ্গা টেকনাফে প্রবেশের অপেক্ষায়! হ্নীলা উম্মে সালমা মহিলা মাদরাসায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত
জুলাইয়ের মধ‌্যে ঘর পাবে আরও ১ লাখ পরিবার

জুলাইয়ের মধ‌্যে ঘর পাবে আরও ১ লাখ পরিবার

মুজিববর্ষে ভূমিহীন এবং গৃহহীন মানুষদের ঘর উপহার দিচ্ছে সরকার। এর অংশ হিসেবে আগামী জুলাই মাসের মধ‌্যে আরও ১ লাখ পরিবার পাবে প্রধানমন্ত্রীর এই উপহার। এপ্রিলে ৫০ হাজার এবং জুনে আরও ৫০ হাজার পরিবারকে নতুন ঘর দেওয়ার লক্ষ‌্য নিয়ে এগোচ্ছে সরকার।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জানুয়ারি মাসে প্রথম ধাপে সারা দেশে প্রায় ৭০ হাজার ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে ঘর উপহার দেন। দ্বিতীয় ধাপের ঘর নির্মাণের কাজ ৭ এপ্রিলের মধ্যে শেষ করার জন্য প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে বৃহস্পতিবার (১১ ফেব্রুয়ারি) দেশের সব বিভাগীয় কমিশনার, জেলা প্রশাসকসহ মাঠ প্রশাসনের কর্মকর্তাদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

ঘর নির্মাণের কাজ এগিয়ে নিতে বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে সমন্বয় সভা হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব মো. তোফাজ্জল হোসেন মিয়া।

সভায় ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যুক্ত হয়ে প্রত্যেক বিভাগীয় কমিশনার, জেলা প্রশাসক ও মাঠ প্রশাসনের কর্মকর্তাদের নির্দেশনা দেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব মো. তোফাজ্জল হোসেন মিয়া।

তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী আজ নির্দেশনা দিয়েছেন যে, আরও ৫০ হাজার ঘরের জন্য আজ মাঠপর্যায়ে ১ হাজার কোটি টাকা ছাড় করা হচ্ছে। এপ্রিল মাসে আরও ৫০ হাজার ঘর উদ্বোধন করব এবং আবার হয়ত জুলাই মাসে আরও ৫০ হাজার উদ্বোধন করতে পারব।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের আশ্রয়ন-২ প্রকল্পের পরিচালক মো. মাহবুব হোসেন বলেন, ‘এবার আমরা যে ঘর করব, তার ডিজাইনে ছোটখাটো পরিবর্তন এসেছে। ঘর নির্মাণের বাজেটের ক্ষেত্রে প্রধানমন্ত্রী মনে করেছেন যে, বাজেটটা আরেকটু বাড়িয়ে দেওয়া দরকার। সেজন্য ঘরপ্রতি ২০ হাজার টাকা বাজেট বাড়ানো হয়েছে।’

প্রথম পর্যায়ে প্রতিটি ঘরের জন্য পরিবহন খরচসহ ১ লাখ ৭৫ হাজার টাকা ধরা হয়েছিল। এবার তা বাড়িয়ে ১ লাখ ৯৫ হাজার টাকা থেকে ১ লাখ ৯৭ হাজার টাকা করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

কাজের অগ্রগতি সম্পর্কে জানতে ও মান পরীক্ষা করতে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের বিভিন্ন জেলায় পাঠানো হবে বলে জানান তিনি।

ভূমি মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মোস্তাফিজুর রহমান, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মোহসীন, প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের আশ্রায়ন-২ প্রকল্পের পরিচালক মো. মাহবুব হোসেনসহ প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা সভায় উপস্থিত ছিলেন।

মুজিববর্ষে ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার’ হিসেবে আশ্রায়ন-২ প্রকল্পের আওতায় এরইমধ্যে ২ শতাংশ জমির সঙ্গে ঘর পেয়েছে সারা দেশের প্রায় ৭০ হাজার পরিবার।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design By Rana