বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ০৯:৫৯ অপরাহ্ন

ডাক্তার-সাংবাদিকসহ ১৮ পেশার মানুষের লাগবে না ‘মুভমেন্ট পাস’

ডাক্তার-সাংবাদিকসহ ১৮ পেশার মানুষের লাগবে না ‘মুভমেন্ট পাস’

ডেস্ক রিপোর্ট :

দেশে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলায় ১৪ এপ্রিল থেকে এক সপ্তাহের জন্য কঠোর বিধিনিষেধ (সর্বাত্মক লকডাউন) জারি করেছে সরকার। এই সময়ের মধ্যে সাধারণ মানুষকে ঘরের মধ্যে থাকতে বলা হলেও জরুরি প্রয়োজনে বের হওয়ার জন্য ‘মুভমেন্ট পাস’র ব্যবস্থা করেছে পুলিশ। তবে গণমাধ্যমকর্মীদের এই পাস লাগবে না। তাদের নিজ প্রতিষ্ঠানের পরিচয়পত্রই মুভমেন্ট পাস হিসেবে গণ্য করা হবে বলে পুলিশ সদর দপ্তর জানিয়েছিল।

তবুও বিধিনিষেধের দুই দিনে রাজধানীতেই ৪ জন সাংবাদিক পেশাগত দায়িত্ব পালনের সময়ে পুলিশের হেনস্তার শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ফলে প্রশ্ন উঠেছে ঊধ্বর্তন পুলিশ কর্মকর্তাদের সঙ্গে মাঠ পর্যায়ের পুলিশ সদস্যদের সমন্বয় ও নির্দেশনার বিষয় নিয়ে।

বিষয়টি নিয়ে বিভ্রান্তি নিরসনে এবার পুলিশ সদর দপ্তর থেকে জানানো হলো মুভমেন্ট পাস কাদের জন্য প্রযোজ্য আর কাদের জন্য প্রযোজ্য নয়। যাদের চলাচলে পাসের প্রয়োজন নেই এমন ১৮টি পেশার নাম উল্লেখ করা হয়েছে। বলা হয়েছে, বিধিনিষেধের আওতামুক্ত ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান, তাদের চলাচলে মুভমেন্ট পাস প্রয়োজন নেই। শুধু পরিচয়পত্র প্রদর্শন করে কর্মস্থলে আসা-যাওয়া করতে পারবেন।

লকডাউনে বিধিনিষেধের আওতামুক্ত যারা:

১. চিকিৎসক

২. নার্স

৩. মেডিকেল স্টাফ

৪. কোভিড-১৯ টিকা/চিকিৎসার সঙ্গে জড়িত ব্যক্তি/স্টাফ

৫. ব্যাংকার

৬. ব্যাংকের অন্যান্য স্টাফ

৭. সাংবাদিক

৮. গণমাধ্যমের ক্যামেরাম্যান

৯. টেলিফোন/ইন্টারনেট সেবাকর্মী

১০. বেসরকারি নিরাপত্তাকর্মী

১১. জরুরি সেবার সঙ্গে জড়িত কর্মকর্তা/কর্মচারী

১২. অফিসগামী সরকারি কর্মকর্তা

১৩. শিল্পকারখানা/গার্মেন্টস উৎপাদনে জড়িত কর্মী/কর্মকর্তা

১৪. আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য

১৫. ফায়ার সার্ভিস

১৬. ডাকসেবা

১৭. বিদ্যুৎ, পানি, গ্যাস ও জ্বালানির সঙ্গে জড়িত ব্যক্তি/কর্মকর্তা ও
১৮. বন্দর-সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি/কর্মকর্তা

লকডাউন বাস্তবায়নে স্থাপিত চেকপোস্টে যেসব পুলিশ সদস্য দায়িত্ব পালন করবেন, তাদের এ বিষয়ে জরুরি ভিত্তিতে ব্রিফিং করার জন্য সংশ্লিষ্ট পুলিশ কর্মকর্তাদের অনুরোধ করা হয়েছে বলে জানান পুলিশ সদর দপ্তরের সহকারী মহাপরিদর্শক এআইজি (মিডিয়া) মো. সোহেল রানা।

এদিকে পুলিশ সদর দপ্তর সূত্রে জানা গেছে, গত দুই দিনে তিন লাখ ১০ হাজার জন ব্যক্তি মুভমেন্ট পাসের জন্য আবেদন করেন। তাদের মধ্যে দুই লাখ ৫০ হাজার জনের পাস ইস্যু করা হয়েছে।

গত ১৩ এপ্রিল সকালে রাজারবাগ পুলিশ লাইন্স অডিটোরিয়ামে মুভমেন্ট পাস অ্যাপসের উদ্বোধন শেষে পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. বেনজীর আহমেদ বলেছেন, ‘মুভমেন্ট পাস নিতেই হবে এমন না। আমরা কাউকে বাধ্য করছি না। এখানে আইনগত কোনো বিষয় নেই।’ তবে পাস ছাড়া কেউ বের হলে তিনি পুলিশের জেরার মুখে পড়বেন বলেও ইঙ্গিত দিয়েছেন আইজিপি। সেই সময়ে তিনি সাংবাদিকদের মুভমেন্ট পাস দরকার নেই বলে জানিয়েছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design By Rana