সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১:৪৪ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
সাড়ে ৪ লাখের বেশি রোহিঙ্গা টেকনাফে প্রবেশের অপেক্ষায়! হ্নীলা উম্মে সালমা মহিলা মাদরাসায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত আরো ৬৪ জন পালিয়ে এলো মিয়ানমার বিজিপি মিয়ানমারের ৫৮ সীমান্তরক্ষী পালিয়ে বিজিবির কাছে আত্মসমর্পণ! জেলা ইসলামী আন্দোলনের সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিল আজ হোয়াইক্যং লাতুরীখোলায় আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে জমি দখলের চেষ্টা ভোট বর্জন করে সরকারকে ‘লাল কার্ড’ দেখিয়েছে জনগণ চরমোনাই পীর এবার স্বতন্ত্র প্রার্থীর কাছে পরাজিত হয়েছেন মহাজোটের হেভিওয়েট প্রার্থী হাসানুল হক ইনু হোয়াইক্যং পুলিশ ফাড়ির অভিযান: দেশীয় ৩ অস্ত্র উদ্ধার : আটক-২ শরীয়তপুরে নিজেই ঘুরে ঘুরে পোস্টার ব্যানার টাঙাচ্ছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী!
দিনে ২০টি রুটি খেয়েও ১৮ মাস বাথরুমে যায় না যে যুবক!

দিনে ২০টি রুটি খেয়েও ১৮ মাস বাথরুমে যায় না যে যুবক!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক::

ভারতের মধ্যপ্রদেশে বসবাস করে এক কিশোর। নাম তার মনোজ চান্ডিল। একটানা ১৮ মাস শৌচাগারে যায় না ১৬ বছর বয়সি এ যুবক। অথচ ওই কিশোর দিনে ১৮ থেকে ২০টি রুটি খায় নিয়মিত। চিকিৎসকরাও ধরতে পারছেন না তার কোনো রোগ। ওই কিশোরের অদ্ভুত এই রোগের কথা জানতে পেরে অবাক বাড়ির লোকও। ইতিমধ্যেই দুশ্চিন্তায় চিকিৎসকদের পরামর্শও নিয়েছেন তারা। কিন্তু তাতেও সুরাহা মেলেনি।
ভারতীয় গণমাধ্যম জানায়, মধ্যপ্রদেশের মোরেনা জেলার পুরা কা সাবজিতের বাসিন্দা মনোজ চান্ডিলের ছেলে আশিস। দীর্ঘ ১৮ মাস ধরে অদ্ভুত রোগে ভুগছিল সে। সারাদিন প্রচুর খাওয়াদাওয়া করলেও কখনই শৌচাগারে যেতে হয়নি। কিন্তু আবার কখনো শরীর খারাপও হয়নি।
ছেলে দিনে অন্তত ১৮ থেকে ২০টি রুটি খাচ্ছে। তা সত্ত্বেও শৌচাগারে যায় না। বিষয়টি দেখেই দুশ্চিন্তায় পড়েন আশিসের বাবা মনোজ এবং পরিবারের বাকি সদস্যরা। এরপর একাধিক চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যাওয়া হয় আশিসকে। একাধিক পরীক্ষাও করা হয়। কিন্তু কোনো কিছুতেই আসল রোগ কী, তা বুঝতে পারেননি চিকিৎসকরা। আপাতত ভবিষ্যতে ছেলের যাতে বড় কোনো অসুখ না হয়, সেই নিয়ে দুশ্চিন্তায় রয়েছে গোটা পরিবার। এমতাবস্থায় চিকিৎসকেরা আরও নানান পরীক্ষার কথা জানাচ্ছেন। তাদের বক্তব্য, সব দিক পরীক্ষা না করলে কোনো সম্ভাবনার কথা জানানো উচিত হবে না। সূত্র : আনন্দবাজার

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design By Rana