শুক্রবার, ১৯ Jul ২০২৪, ০৫:৪৯ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
ফিলিস্তিনের স্বাধীনতাকামীদের ধ্বংসে পদক্ষেপ নিল আর্জেন্টিনা প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প গুলিবিদ্ধ! আলোর ছোঁয়া ফ্রেন্ডশিপ ক্লাবের উদ্যোগে বৃক্ষ রোপন ও চারা বিতরণ এর শুভ সূচনা  ভারতের সঙ্গে সকল চুক্তি বাতিলের দাবীতে আজ জেলা ইসলামী আন্দোলনের বিক্ষোভ আলোর ছোঁয়া ফ্রেন্ডশিপ ক্লাব” এর ঈদ পুনর্মিলন ও অভিষেক অনুষ্ঠান সম্পন্ন হোয়াইক্যং ইউনিয়নের নতুন কাজী নিয়োগ আলোর ছোঁয়া ফ্রেন্ডশিপ ক্লাবের ৩৬ সদস্য বিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা আরও তিন বছর বাংলাদেশ থেকে কর্মী নেবে মালয়েশিয়া সেন্টমার্টিন ও ইনানীতে বেনজীরের জমি কাউন্সিলর নুর মোহাম্মদ মাঝুর পিতার ইন্তেকালে জেলা ইসলামী আন্দোলনের শোক ও দোয়া
প্রত্যাবাসনের দাবিতে উখিয়ার শরনার্থী শিবিরে রোহিঙ্গাদের সমাবেশ অনুষ্টিত

প্রত্যাবাসনের দাবিতে উখিয়ার শরনার্থী শিবিরে রোহিঙ্গাদের সমাবেশ অনুষ্টিত

নানা শ্লোগানে মুখরিত রোহিঙ্গা ক্যাম্প:

প্রত্যাবাসনের দাবিতে উখিয়ার শরনার্থী শিবিরে আজ রোহিঙ্গা সমাবেশ অনুষ্টিত:
মুহাম্মদ তাহের নঈম,টেকনাফ থেকে::
২০১৭ সালের গণহত্যার বিচার দাবি ও পূর্ণ নাগরিকত্ব অধিকার ফিরিয়ে দিয়ে, মর্যাদাপূর্ণ প্রত্যাবাসনসহ নানা দাবিতে সমাবেশ ও মানববন্ধনের ডাক দিয়েছেন রোহিঙ্গারা। আজ ২৫ আগস্ট ক্যাম্পের ভেতরে অন্তত ৬ থেকে ৯টি ক্যাম্পে পৃথকভাবে এই মানববন্ধন ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে বলে জানিয়েছেন রোহিঙ্গা নেতারা। যদিও সংশ্লিষ্টরা বলছে, এটি আনুষ্ঠানিক কোনো সমাবেশ নয়। শুধু নিজ নিজ ক্যাম্পে মানববন্ধন করার সুযোগ পাবেন রোহিঙ্গারা।

২০১৭ সালের ২৫ আগস্ট মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে নির্যাতন ও গণহত্যার মাধ্যমে রোহিঙ্গাদের দেশ ছাড়া করার ৫ বছর পূর্তি উপলক্ষ্য এ সমাবেশ ও মানববন্ধনের আয়োজন করছেন রোহিঙ্গারা।
মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে নির্যাতনের মুখে পড়ে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া আটকে থাকা আর ভাসানচরে স্থানান্তর নিয়ে পার হচ্ছে আরেকটি বছর।
২৫ আগস্ট মিয়ানমার থেকে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গা ঢলের ৫ বছর পূর্ণ হয়েছে। গত ২০১৭ সালের ২৫ আগস্ট থেকে অল্প দিনের মধ্যে বাংলাদেশে এ রোহিঙ্গা ঢল প্রবেশ করে। মিয়ানমারে জাতিগত নিধনের শিকার হয়ে প্রায় ১১ লাখের বেশি রোহিঙ্গা এখন বাংলাদেশে। কক্সবাজারের উখিয়া-টেকনাফের ৩৩টি ক্যাম্পে তাদের বসবাস।

এর বাইরে কক্সবাজারের বিভিন্ন এলাকায় ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে অসংখ্য রোহিঙ্গা। কিছু সংখ্যক রোহিঙ্গা ভাসানচরে পাঠানো হলেও অনেকেই পালিয়ে এসেছে। তবে রোহিঙ্গা ঢলের এ ৫ বছরে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে কক্সবাজারের স্থানীয় লোকজন ও সামাজিক পরিবেশের ওপর। প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া বিলম্বিত হওয়ায় রোহিঙ্গাদের ভার এখন বাংলাদেশের ওপর পড়েছে। এদিকে রোহিঙ্গাদের দ্রুত প্রত্যাবাসন দাবি নিয়ে ২৫ আগস্ট সকালে কক্সবাজারে কয়েকটি সংগঠনের ব্যানারে অবস্থান কর্মসূচি রয়েছে বলে একটি সূত্র নিশ্চিত করেছে।
সম্প্রতি কক্সবাজারের উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করেছেন জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক হাইকমিশনের প্রধান মিশেল ব্যাচেলেট ও জাতিসংঘের মিয়ানমার বিষয়ক বিশেষ দূত মিস নোয়েলিন হেজার। তাদের কাছে রোহিঙ্গারা নিজ দেশে ফিরে যাওয়ার আকুতি জানিয়েছে। ক্যাম্প পরিদর্শনে তারা রোহিঙ্গাদের নিরাপদ ও সম্মানজনক প্রত্যাবাসনের জন্য ধৈর্য ধরার আহ্বান জানিয়েছেন। তবে রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসন কখন কীভাবে হবে এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি কেউ।

এ সময় রোহিঙ্গা যুবক ইউসুফ জানান, প্রতিনিধি দলটি আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি সম্পর্কে জানতে চান। ক্যাম্পকেন্দ্রিক সংঘবদ্ধ অপরাধীর তৎপরতা, হত্যা, অপহরণ, মুক্তিপণ আদায়, মাদক ব্যবসাসহ সার্বিক পরিস্থিতির কথা প্রতিনিধিদের জানানো হয়। কিছু চিহ্নিত অপরাধী চক্র এমন অপকর্মে জড়িত থাকার বিষয় অবগত করে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবিও জানানো হয়।

কক্সবাজার পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রফিকুল ইসলাম জানান, ২০১৭ থেকে ২০২২ সালের জুলাই পর্যন্ত ৯৯টি খুনের ঘটনা ঘটেছে। খুনাখুনি, অপহরণ, ধর্ষণ, মাদক ব্যবসা, চাঁদাবাজি, মানব পাচার, অগ্নিসংযোগসহ ১৪ ধরনের অপরাধের সঙ্গে রোহিঙ্গারা জড়িয়ে পড়েছে। এসব কারণে ১ হাজার ৯০৮টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। অবশ্যই বিভিন্ন সংস্থা ও স্থানীয় তথ্যমতে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ১২০টির বেশি হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটেছে।

রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনের বিষয়ে অগ্রগতির বিষয়ে জানতে চাইলে শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার শাহ রেজওয়ান হায়াত বলেন, প্রত্যাবাসন বিষয়টি দেখছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। আমরা শুধু রোহিঙ্গাদের মানসিকভাবে প্রস্তুত করাসহ নানা বিষয়ে কাজ করছি। যে কোনো সময় প্রত্যবাসনের প্রক্রিয়া শুরু করতে আমরা শতভাগ প্রস্তুত রয়েছি। তিনি আরও বলেন, প্রত্যাবাসন শুরু না হলেও আপাতত ক্যাম্পে চাপ কমানোর জন্য ১ লাখ রোহিঙ্গাকে নোয়াখালীর ভাসানচর নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। ইতিমধ্যে প্রায় ৩৫ হাজারের অধিক রোহিঙ্গাকে সেখানে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।#

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design By Rana