মঙ্গলবার, ১৬ Jul ২০২৪, ০৭:৩৫ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
ফিলিস্তিনের স্বাধীনতাকামীদের ধ্বংসে পদক্ষেপ নিল আর্জেন্টিনা প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প গুলিবিদ্ধ! আলোর ছোঁয়া ফ্রেন্ডশিপ ক্লাবের উদ্যোগে বৃক্ষ রোপন ও চারা বিতরণ এর শুভ সূচনা  ভারতের সঙ্গে সকল চুক্তি বাতিলের দাবীতে আজ জেলা ইসলামী আন্দোলনের বিক্ষোভ আলোর ছোঁয়া ফ্রেন্ডশিপ ক্লাব” এর ঈদ পুনর্মিলন ও অভিষেক অনুষ্ঠান সম্পন্ন হোয়াইক্যং ইউনিয়নের নতুন কাজী নিয়োগ আলোর ছোঁয়া ফ্রেন্ডশিপ ক্লাবের ৩৬ সদস্য বিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা আরও তিন বছর বাংলাদেশ থেকে কর্মী নেবে মালয়েশিয়া সেন্টমার্টিন ও ইনানীতে বেনজীরের জমি কাউন্সিলর নুর মোহাম্মদ মাঝুর পিতার ইন্তেকালে জেলা ইসলামী আন্দোলনের শোক ও দোয়া
বনবিভাগের জায়গায় অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ : ভূমিদস্যুদের হুমকি নানা প্রপাগাণ্ডা ও অপপ্রচার!

বনবিভাগের জায়গায় অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ : ভূমিদস্যুদের হুমকি নানা প্রপাগাণ্ডা ও অপপ্রচার!

হোয়াইক্যং রেঞ্জ এলাকায় বন বিভাগের অভিযানে বাড়িঘর উচ্ছেদ করায়

ভূমিদস্যুদের হুমকি নানা প্রপাগাণ্ডা ও অপপ্রচার!

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
কক্সবাজার দক্ষিণ বন বিভাগ এর আওতাধীন টেকনাফ উপজেলার হোয়াইক্যং রেঞ্জ এলাকায় সরকারি সংরক্ষিত বনভূমি দখল করে নির্মিত পাকা দেয়াল ও ঘর ভেঙে দিয়ে সরকারি জমি দখল মুক্ত করায় সংশ্লিষ্ট রেঞ্জ ও বন বিটের বিরুদ্ধে উঠে পড়ে লেগেছে একটি জবর দখলকারী চক্র ।
হোয়াইক্যং রেঞ্জের রেঞ্জ কর্মকর্তাজহির উদ্দিন মোঃ মিনার চৌধুরী জানান,এই রেঞ্জের আওতাধীন ৪টি বিট পাহাড় ও পরিবেশ রক্ষায় নিরলসভাবে কাজ করছে।
জানা যায়, হোয়াইক্যং-শামলাপুর এলাকার দৈংগাকাটা এলাকায় বনবিভাগের জায়গায় পাহাড় কেটে সেমিপাকা দালান নির্মাণের তথ্য পায় বন বিভাগ। এ খবরে বন ও রেঞ্জ কর্মকর্তা (ডিএফওর) বিভাগীয় কর্মকর্তার নির্দেশনায় সম্প্রতি এক অভিযান চালিয়ে অবৈধভাবে নির্মিত পাকা দেয়াল ও ঘর ভেঙে দেওয়া হয়।
১টা সেমিপাকা ঘর,৪টা টিনশেডঘর সহ ১০টি ঘর উচ্ছেদ করেছি। পাহাড় দখল করে ঘর তৈরি কারী ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।
বন বিভাগের জমিতে কেউ অবৈধভাবে ঘর করলে কাউকে ছাড় দেবেননা বলে ও সাফ জানান রেঞ্জ কর্মকর্তা।
রেঞ্জ কর্মকর্তা জহির উদ্দিন মো মিনার চৌধুরী জানান, জেলার উর্ধ্বতন কতৃপক্ষের নির্দেশ মতে আমরা কাজ করে যাচ্ছি।
কিছু গাছ চোর, বনের জমি জবরদখলকারী এবং যাদের বাড়িঘর উচ্ছেদ করছি, তারাই মূলত আমাদের বিরুদ্ধে নানা অপপ্রচার ও প্রপাগাণ্ডা চড়াচ্ছে। তারা আমার অফিসের ষ্টাফদের কে দেখে নেবে বলে ও হুমকি দিচ্ছে।
তারা কিছু মিডিয়া কর্মীদের ভূল তথ্য দিয়ে দখলদারিত্ব বজায় রাখার চেষ্টা করছে।
রেঞ্জ অফিসার জহির উদ্দিন মো মিনার চৌধুরী জানান, বনের গাছ পাচার ও জমি জবরদখলের ফলে ২২-২৩ অর্থ বছরে ১৮/১৯ টা পিওআর মামলা হয়েছে।
৩ জন আসামী কে হাতেনাতে ধৃত করে কোর্টে প্রেরণ করা হয়েছে। আনুমানিক সাড়ে ৩ শ ঘনফুট কাঠ জব্দ করা হয়েছে। ট্রাক,ডাম্পার সহ ৭টি গাড়ি আটক করা হয়েছে।
মিনার চৌধুরী জানান,
অবৈধ জবর দখলের বিরুদ্ধে আমাদের জিরু ট্রলারেন্স নীতির ফলে কিছু জবরদখলকারী বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে অপপ্রচার চালাচ্ছে বলে ও জানান তিনি।

তিনি আরো জানান, ঘর ভাঙ্গলে একদিকে মানবতার প্রশ্ন? অপরদিকে না ভাঙলে বলে টাকা নিয়েছে বলে বদনাম করে,এখন আমরা কোথায় যাবো?
জানা যায়, দক্ষিণ বনবিভাগের
হোয়াইক্যং রেঞ্জের আওতায় ৪ টি বনবিট রয়েছে।
রইক্ষং বিট,হোয়াইকং বিট, শামলাপুর বিট ও মনখালী বিট। মোট-৪ বিট অফিসের মধ্যে ২জন বিন কর্মকর্তা রয়েছেন। মোট
৪টি বিটে -১১ জন ষ্টাফ রয়েছে। সব মিলে রেন্জ অফিসার সহ ১৩ জন এখন কর্মরত । অথচ লোকবলের চাহিদা রয়েছে ২০/২৫ জনের। আর আমাদের যাতায়াতের জন্য কোন গাড়ি নেই। দুই একটা বাইক থাকলে ও তা খারাপ। এ অবস্থায় বনের রক্ষনাবেক্ষন,টহল দিতে ও হিমশিম খেতে হয়। এক প্রশ্নের জবাবে রেঞ্জ কর্মকর্তা মিনার চৌধুরী জানান, যে সব ভূমিদস্যু বন বিভাগের জায়গা দখল করে স্থাপনা বা ঘর নির্মাণ করছে। তাদের বিরুদ্ধে আমাদের অভিযান চলমান থাকবে। যারা বন আইন মানবে না, তাদের বিরুদ্ধে বন বিভাগ আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করতে বাধ্য হবে।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design By Rana