Logo

বাছাই শেষে টেকনাফে ৮ প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল

টেকনাফে ৮ প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল
১৯ মার্চ টেকনাফের ৫টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মোট ৫০১জন প্রার্থীর মধ্যে বাছাইয়ের সময় ৮ জন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষনা করা হয়েছে।
এরমধ্যে চেয়ারম্যান প্রার্থী ৫ জন এবং সাধারণ ওয়ার্ডের ৩ জন। সংরক্ষিত আসনের কারও মনোনয়নপত্র বাতিল হয়নি।
টেকনাফ উপজেলা নির্বাচন অফিসার মোহাম্মদ বেদারুল ইসলাম জানান, ঘোষিত তপশীল মতে আজ ১৯ মার্চ ছিল মনোনয়নপত্র বাছাই। বিভিন্ন কারণে ৮ জন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে। এরমধ্যে বাতিল হওয়া চেয়ারম্যান প্রার্থী ৫ জন হলেন সদর ইউনিয়নের জিয়াউর রহমান জিহাদ, আবদুর রহমান, আবদুল ওয়াজেদ, হোয়াইক্যং ইউনিয়নের নুরুল হোছাইন ছিদ্দিকী ও ফরিদুল আলম। সাধারণ ওয়ার্ডের ৩ জন হলেন হ্নীলা ইউনিয়নের সাধারণ ৫নং ওয়ার্ডের মোঃ ইলিয়াছ, হোয়াইক্যং ইউনিয়নের সাধারণ ৭নং ওয়ার্ডের জাহেদ হোসেন, সাবরাং ইউনিয়নের সাধারণ ৬নং ওয়ার্ডের মোঃ হাশেম। সংরক্ষিত আসনের কারও মনোনয়নপত্র বাতিল হয়নি।
বর্তমানে হোয়াইক্যং ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে বৈধ প্রার্থী হলেন ৫ জন আজিজুল হক, বর্তমান চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ আলহাজ¦ মাওঃ নুর আহমদ আনোয়ারী, আলমগীর চৌধুরী, আব্দুল্লাহ।
হ্নীলা ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৪ জন হলেন রাশেদ মাহমুদ আলী, কামাল উদ্দীন আহমদ, আলী হোসাইন সুমন, নূর হোছাইন ফাহিম।
টেকনাফ সদর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে বৈধ প্রার্থী ৯ জন হলেন আবু ছৈয়দ, বর্তমান চেয়ারম্যান শাহজাহান মিয়া, মোঃ ফারুক আলম, হাফেজ আহমদ, জাফর আহমদ, হোসেন আহমদ, দিদার মিয়া, মোঃ আব্দুল্লাহ, মোঃ নুরুল আবছার।
সাবরাং ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে বৈধ প্রার্থী ৬ জন হলেন আলহাজ¦ সোনা আলী, বর্তমান চেয়ারম্যান নুর হোসেন, সোলতান আহমদ, হাবিবুর রহমান, মোঃ ইসমাইল ও নুরুল হক।
সেন্টমার্টিনদ্বীপ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে বৈধ প্রার্থী ৬ জন হলেন মুজিবুর রহমান, আব্দুর রহমান, বর্তমান চেয়ারম্যান আলহাজ¦ নুর আহমদ, জাহিদ হোসেন, মাওঃ ফিরোজ আহমদ, মোঃ কেফায়েত উল্লাহ।
উল্লেখ্য, টেকনাফ উপজেলায় নির্বাচন হচ্ছে ৫টি ইউনিয়নে। প্রতি ইউনিয়নে ১জন চেয়ারম্যান, সংরক্ষিত ৩টি আসনে ৩ জন নারী এবং সাধারণ ৯টি ওয়ার্ডে ৯ জন মেম্বার। সেহিসাবে প্রতি ইউনিয়নে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধির সংখ্যা ১৩ জন। ৫টি ইউনিয়নে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধির মোট সংখ্যা দাঁড়ায় মাত্র ৬৫ জন। মোট ৫৩৫ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছিলেন। কিন্ত মনোনয়নপত্র দাখিল করেছিলেন চেয়ারম্যান পদে ৩৫ জন, সংরক্ষিত আসনে ৮০ জন এবং সাধারণ ওয়ার্ডে ৩৮৬ জনসহ মোট ৫০১ জন। ১৯ মার্চ বাছাইয়ে ৮ জনের প্রার্থীতা বাতিল করা হয়েছে। বর্তমানে প্রার্থীর সংখ্যা ৪৯৩ জন। প্রার্থীতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ২৪ মার্চ, ২৫ মার্চ প্রতীক বরাদ্দ এবং ১১ এপ্রিল নির্বাচন অনুষ্টিত হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Developed By Banglawebs