সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ১০:৩৬ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
মিয়ানমারে সরকার গঠন করতে যাচ্ছে বিদ্রোহীরা প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ জানিয়েছে মোস্তাফিজ ও বাবুল মিয়ানমারের গ্যং স্টারের বাংলাদেশি সহযোগি হোয়াইক্যং এর দালালরা অধরায়! সাড়ে ৪ লাখের বেশি রোহিঙ্গা টেকনাফে প্রবেশের অপেক্ষায়! হ্নীলা উম্মে সালমা মহিলা মাদরাসায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত আরো ৬৪ জন পালিয়ে এলো মিয়ানমার বিজিপি মিয়ানমারের ৫৮ সীমান্তরক্ষী পালিয়ে বিজিবির কাছে আত্মসমর্পণ! জেলা ইসলামী আন্দোলনের সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিল আজ হোয়াইক্যং লাতুরীখোলায় আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে জমি দখলের চেষ্টা ভোট বর্জন করে সরকারকে ‘লাল কার্ড’ দেখিয়েছে জনগণ চরমোনাই পীর
মামলার প্রতিক্রিয়ায় বাবুনগরী: এটা আমাদের সৌভাগ্য, নাজাতের উছিলা হবে

মামলার প্রতিক্রিয়ায় বাবুনগরী: এটা আমাদের সৌভাগ্য, নাজাতের উছিলা হবে

ভাস্কর্যবিরোধী বক্তব্য দেয়ার অভিযোগে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমির শাইখুল হাদিস আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী,বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব শাইখুল হাদিস মাওলানা মুহাম্মদ মামুনুল হক ও চরমোনাইয়ের পীর সাহেব মুফতি সৈয়দ ফয়জুল করিমের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা হয়েছে।

চট্টগ্রামের হাটহাজারী মাদ্রাসায় অবস্থানরত আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী এই মামলার খবর শুনে সংক্ষিপ্ত প্রতিক্রিয়ায় বলেছেন, ‘কোরআন-হাদীসের বাণী পৌঁছাতে গিয়ে ভাস্কর্যের বিরুদ্ধে বক্তব্য দেওয়ায় আমাদের নামে মামলা হয়েছে। এটাই নাজাতের উছিলা হবে, আর এটাই আমাদের সৌভাগ্য।

সোমবার বাবুনগরীর একান্ত সচিব ইনামুল হাসান ফারুকী তার ফেসবুক পোস্টে লিখেছেন, ‘কিছুক্ষণ আগে আমার প্রাণপ্রিয় শায়েখ ও মুরশিদ কায়েদে আজম শাইখুল হাদিস আল্লামা জুনাযেদ বাবুনগরীকে যখন বললাম, ভাস্কর্য ইস্যুতে আপনাকেসহ আল্লামা মামুনুল হক ও আল্লামা ফয়জুল করীম সাহেবের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।

‘হুজুর হেসে বললেন, কোরআন-হাদিসের বাণী পৌঁছাতে গিয়ে ভাস্কর্যের বিরুদ্ধে বক্তব্য দেওয়ায় আমাদের নামে মামলা হয়েছে। এটাই নাজাতের উছিলা হবে, আর এটাই আমাদের সৌভাগ্য।

চরমোনাই পীরের সংবাদ সম্মেলন:

মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ ও বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন কর্তৃক জুনাইদ বাবুনগরী, মাওলানা মামুনুল হকের বিরুদ্ধে করা ‘রাষ্ট্রদ্রোহ’ মামলা ও দেশের পরিস্থিতি নিয়ে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম মঙ্গলবার দুপুর ১২টায় রাজধানীর পুরানা পল্টনস্থ সংগঠনটির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলন করবেন।

উল্লেখ্য, ১৩ নভেম্বর বিএমএ মিলনায়তনে বাংলাদেশ যুব খেলাফত মজলিসের ঢাকা মহানগর শাখার সমাবেশে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণের বিরোধিতা করে বক্তব্য দেন মামুনুল হক।

তিনি বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য গড়তে দেওয়া হবে না। প্রয়োজনে লাশের পর লাশ পড়বে। আবারও তৌহিদী জনতা নিয়ে শাপলা চত্বর কায়েম হবে।’

এদিকে সৈয়দ ফয়জুল করীম দোলাইপাড়ের কাছে গেণ্ডারিয়া নামক স্থানে বলেন, ‘আন্দোলন করব, সংগ্রাম করব, জেহাদ করব। রক্ত দিতে চাই না, দেওয়া শুরু করলে বন্ধ করব না। রাশিয়ার লেলিনের ৭২ ফুট মূর্তি যদি ক্রেন দিয়ে তুলে সাগরে নিক্ষেপ করতে পারে, তাহলে আমি মনে করি শেখ সাহেবের এই মূর্তি আজ হোক, কাল হোক খুলে বুড়িগঙ্গায় নিক্ষেপ করবে।’

 

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design By Rana