1. banglahost.net@gmail.com : rahad :
  2. teknafnews24@gmail.com : tahernaeem :
সন্তানকে পুড়তে দেখে আগুনে ঝাঁপ দিলেন মা - Teknaf News24
মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ০৯:৪৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
গণকমিশনের আইনি ভিত্তি নেই: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী টেকনাফের আলোচিত ভুট্টো হত্যা মামলার ৪ আসামি আটক করেছে পুলিশ পুলিশের বিচ্ছিন্ন কবজি জোড়া লাগানো প্রচারবিমুখ এক চিকিৎসকের গল্প অবশেষে ৯৫৯ ইউক্রেনীয় যোদ্ধা রাশিয়ার কাছে আত্মসমর্পণ বছরে দেশ থেকে ৬৪ হাজার কোটি টাকা পাচার হচ্ছে- জিএম কাদের এমপি ’ মৃত ব্যক্তির আবেদনে গ্রেফতারি পরোয়ানা, ৩২ দিন কারাভোগ এবার স্বায়ত্তশাসিত-আধা সরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মীদেরও বিদেশ সফর বন্ধ! মসজিদের ভিতরে আশ্রয় নিয়েও প্রাণে রক্ষা পেলনা নাজিরপাড়ার ভুট্টো আমিরাতের প্রেসিডেন্টের মৃত্যু:৪০ দিনের শোক ঘোষণা :প্রাইভেট প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে ৩দিন সত্য কথা’ বলার জন্য ওবায়দুল কাদেরকে ধন্যবাদ জানালেন মির্জা ফখরুল

সন্তানকে পুড়তে দেখে আগুনে ঝাঁপ দিলেন মা

ডেস্ক রিপোর্ট ::
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ৮ মার্চ, ২০২২
  • ১৮৪ বার পঠিত

নিউজ ডেস্ক::

পটুয়াখালীর মহিপুরে বসতঘরে লাগা আগুনে পুড়ে মোসা. সামিয়া (৭ মাস) নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। তাকে উদ্ধার করতে গিয়ে মা চম্পা বেগমও (৩০) দগ্ধ হয়েছেন। তাকে উদ্ধার করে কলাপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

সোমবার (৭ মার্চ) বিকাল ৫টায় ধুলাসার ইউনিয়নের পশ্চিম চাপলী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। মৃত সামিয়া ওই এলাকার রাজমিস্ত্রী মো. রমাজান আলী ও চম্পা বেগমের মেয়ে।

স্থানীয়রা জানান, সামিয়াকে ঘুম পাড়িয়ে তার মা পার্শ্ববর্তী বিলের মধ্যে কৃষি কাজে যান। এ সময় হঠাৎ তাদের ঘরে আগুন লাগে। মুহূর্তেই আগুনের লেলিহানে পুড়ে যায় সামিয়া। পুড়ে ছাই হয়ে যায় তাদের বসতঘর। মা দৌড়ে এসে সন্তানকে বাঁচাতে গিয়ে দগ্ধ হন। স্থানীয়রা চম্পাকে উদ্ধার করে কলাপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। এরপর আশপাশের আরও লোকজন জড়ো হয়ে আগুন নেভাতে চেষ্টা করেন। নিভে যাওয়ার পর ছাইয়ের ভেতর থেকে সামিয়ার লাশ বের করা হয়।

কলাপাড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিক্যাল কর্মকর্তা ডা. মাহমুদুল হাসান মিথুন জানান, দগ্ধ নারীকে হাসপাতালে নিয়ে আসার সঙ্গে সঙ্গে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। তার শরীরের ৩০ ভাগ পুড়ে গেছে। বিশেষ করে মুখমণ্ডল ও ডান হাত বেশি দগ্ধ হয়েছে।

মহিপুর থানার ওসি আবুল খায়ের বলেন, ‘ঘটনাটি মর্মান্তিক। খবর পেয়ে আমি ঘটনাস্থলে গিয়েছি। বাড়িটি ছিল এমন জায়গায় যে, কিছু দূরে একটিমাত্র টিউবওয়েল। আশপা‌শের কোথাও কোনও পুকুর বা খাল নেই। যে কারণে আগুন নেভাতে কষ্ট হয়েছে। অনেক সময় ধরে আগুন জ্বলতে থাকায় বাচ্চাটাকে বাঁচানো সম্ভব হয়নি। বাচ্চার ময়ের অবস্থাও তেমন একটা ভালো না। শরীরের এক পাশ সম্পূর্ণ পুড়ে গেছে। চুলা থেকে আগুন লাগতে পারে। তারপরও খোঁজখবর নিচ্ছি।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Bangla Webs