1. banglahost.net@gmail.com : rahad :
  2. teknafnews24@gmail.com : tahernaeem :
হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে রোমাাঞ্চকর জয় রাজস্থানের - Teknaf News24
শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ০৭:৩২ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
রোহিঙ্গা ও আটকে পড়া পাকিস্তানিরা বাংলাদেশের বোঝা: প্রধানমন্ত্রী প্রাথমিক-ইবতেদায়ি সমাপনী পরীক্ষা হচ্ছে না! বাংলাদেশ কোনো ধর্ম ব্যবসায়ী-মৌলবাদীর আস্তানা হতে পারে না- তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী উখিয়ার ৫ ইউনিয়নে ৩৯২ প্রার্থীর মনোনয়ন জমা টেকনাফে প্রধানমন্ত্রীর অনুদানের চেক হস্তান্তর হোয়াইক্যং বাজার ব্যবসায়ী কল্যাণ সমবায় সমিতির নির্বাচনে হানিফ সভাপতি,মুর্শেদ সম্পাদক নির্বাচিত আইসের চালান ধরা পড়লে টাকা দিতে হয় না মিয়ানমারে টেকনাফের ৩ ইউনিয়নের নবনির্বাচিত সদস্য ও মহিলা সদস্যদের শপথ অনুষ্টান সম্পন্ন উখিয়ার ৫ ইউনিয়নে আ.লীগের প্রার্থী চূড়ান্ত তারুণ্যের আইডল,কওমী জগতের গর্বিত সন্তান আল্লামা ওবায়দুল্লাহ হামযাহ

হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে রোমাাঞ্চকর জয় রাজস্থানের

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ১২ অক্টোবর, ২০২০
  • ৩৪৯ বার পঠিত

দুই তরুণের কাঁধে ভর করে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে জয় ছিনিয়ে নিল রাজস্থান রয়্যালস। রাহুল তেওটিয়া ও রিয়ান পরাগের ব্যাটে চার ম্যাচ পর জয়ে ফিরল রয়্যালস বাহিনী। ১৫৯ রান তাড়া করতে নেমে পাঁচ উইকেট ম্যাচ জিতে নেয় রাজস্থান। প্রথম দু’টি ম্যাচ জিতলেও পরের টানা চারটি ম্যাচে হারের পর ফের জয়ে ফিরলে স্টিভেন স্মিথসাঞ্জু স্যামসনরা।

রান তাড়া করতে নেমে ৭৮ রানে পাঁচ উইকেট হারানোর পর ম্যাচের জয়ের আশা ছেড়ে দিয়েছিল রাজস্থান৷। কিন্তু পঞ্চম উইকেটে তেওটিয়া ও পরাগের অবিভক্ত ৮৫ রানের পার্টনারশিপে এক বল বাকি থাকতেই ম্যাচ জিতে নেয় রয়্যালস। কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের পর ফের ব্যাট হাতে দলকে জেতালেন স্পিনার তেওটিয়া। এদিন ২৮ বলে চারটি বাউন্ডারি ও দু’টি ওভার বাউন্ডারির সাহায্যে ৪৫ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলে দলকে জেতান তিনি। তেওটিয়াকে সঙ্গ দেন পরাগ। ২৬ বলে ৪২ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলেন তিনি।

এর আগে রান তাড়া করতে নেমে প্রথম পাঁচ ওভারের মধ্যে রাজস্থান রয়্যালসের তিন ব্যাটসম্যান ডাগ-আউটে ফেরেন। এদিন প্রথম ম্যাচ খেলতে নামেন বেন স্টোকস৷ তাঁকে দিয়ে এদিন ওপেন করান রয়্যালস ক্যাপ্টেন। কিন্তু ব্যাট হাতে দাগ কাটতে ব্যর্থ স্টোকস। মাত্র ৫ রানে স্টোকসের স্টাম্প ছিটকে দেন খলিল আহমেদ। এরপর ক্যাপ্টেন স্টিভ স্মিথ ও জেস বাটলার ডাগ-আউটে ফেরেন।

দ্রুত তিন উইকেট হারানোর পর সঞ্জু স্যা্মসন ও রবীন উথাপ্পা রয়্যালস ইনিংস এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। কিন্তু দু’জনেই দলকে ১০০ রানেও পৌঁছতে পারেননি। স্যামসন ২৬ ও উথাপ্পা ১৮ রান করে ডাগ-আউটে ফিরে যান। ৭৮ রানে পাঁচ উইকেট হারিয়ে ধুঁকতে থাকা রয়্যালস ইনিংসকে টেনে তোলার চেষ্টা করেন তেওটিয়া ও পরাগ। পঞ্চম উইকেটে এই দু’জনের দুরন্ত পার্টনারশিপে অপ্রত্যাশিত জয় পায় রাজস্থান। রশিদ খানের দুরন্ত বোলিংয়েও দুর্দান্ত জয় ছিনিয়ে নেয় রয়্যালস।

এর আগে টস জিতে প্রথমে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। আগের ম্যাচে দুই ওপেনারের ব্যাটে বড় ইনিংস গড়া সানরাইজার্সের এদিন শুরুটা অবশ্য ভালো হয়নি। ব্যক্তিগত ১৬ রানে আউট হন জনি বেয়ারস্টো। এরপর ডেভিড ওয়ার্নার ও মনীশ পান্ডের ব্যাটে চার উইকেটে ১৫৮ রান তুলেছিল হায়দরাবাদ। ওয়ার্নার ৩৮ বলে ৪৮ ও মনীশ ৪৪ বলে ৫৪ রানের ইনিংস খেলেন। তবে দলকে জিতিয়ে ম্যাচ সেরা হন রাহুল তেওটিয়া।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Bangla Webs