বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১০:১৫ অপরাহ্ন

১৮ বছর পর শরীয়তপুর-ঢাকা বাস সার্ভিস চালু

১৮ বছর পর শরীয়তপুর-ঢাকা বাস সার্ভিস চালু

শরীয়তপুর বাসস্ট্যান্ড থেকে ১৮ বছর পর শরীয়তপুর-ঢাকা বাস সার্ভিস চালু হলো। পদ্মা সেতু চালু হওয়ার পর শরীয়তপুর বাসস্ট্যান্ড থেকে রোববার সকাল ৮টা ৩০ মিনিটের সময় শরীয়তপুর সুপার সার্ভিসের ১৫টি গাড়ি ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে যায়। এরপর আর কোনো বাস ছাড়েনি। তবে পর্যাপ্ত গাড়ি না পেয়ে আগের মতোই লঞ্চ, ফেরি, সিবোট দিয়ে পার হয়ে ঢাকা যেতে হয়েছে যাত্রী সাধারণের।

শরীয়তপুর সুপার সার্ভিস পরিবহনের লাইন সেক্রেটারি বিল্লাল তালুকদার ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ২০০৪ সালে ঢাকার সঙ্গে সরাসরি বাস চলাচল বন্ধ হয় শরীয়তপুরের। দীর্ঘদিনের ভোগান্তি শেষে রোববার শরীয়তপুরের যাত্রীরা বাসে করে পদ্মা সেতু পার হয়ে ঢাকায় গেলেন।

প্রায় ১৮ বছর পর রোববার সকাল সাড়ে ৮টায় শরীয়তপুর পৌর বাস টার্মিনাল থেকে ঢাকার সঙ্গে সরাসরি বাস চলাচল শুরু হয়েছে। পদ্মা সেতু পেরিয়ে প্রথম বাসটি ঢাকার যাত্রাবাড়ীতে পৌঁছায় বেলা সাড়ে ১১টার দিকে। দীর্ঘ অপেক্ষার পর পদ্মা সেতু পার হতে পেরে উৎফুল্ল চালক ও যাত্রীরা।

পদ্মা সেতু চালু হওয়ার শরীয়তপুর বাস মালিক গ্রুপের পক্ষ থেকে সরাসরি শরীয়তপুর থেকে ঢাকা রুটে শরীয়তপুর সুপার সার্ভিস নামে উন্নতমানের বিলাসবহুল ১৫টি গাড়ি চালু করা হয়। রোববার সকাল সাড়ে ৮টা থেকে পর্যায়ক্রমে বাসগুলো রাজধানীর উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায়। সেখানে যাত্রীপ্রতি ২৫০ টাকা হারে ভাড়া নেওয়া হয়।

এদিকে রোববার সকাল থেকেই শরীয়তপুর বাসস্ট্যান্ড এলাকায় যাত্রীদের উপচে পড়া ভিড় ছিল। মাত্র ১৫টি গাড়ি ছেড়ে যাওয়ায় অনেক যাত্রীকে আগের মতো লঞ্চ, ট্রলার  ও সি-বোটে পার হয়ে যেতে হয়েছে।

শরীয়তপুর সুপার সার্ভিসের প্রথম বাসের উদ্বোধন করেন শরীয়তপুর সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ও শরীয়তপুর বাস মালিক গ্রুপের সভাপতি ফারুক আহাম্মেদ তালুকদার।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design By Rana